রবিবার, ২০ জুন, ২০২১

সম্পাদকীয়


 

জীবনকে শুরু করার দায়িত্ব আমাদের হাতে থাকে না কিন্তু তাকে সুন্দর ভাবে চালানোটা অনায়াসেই পারি । শুধুমাত্র নিজে বাঁচাটাকেই কী বাঁচা বলব ! জীবন তো একটাই । সবার সাথে মিলেমিশে বেঁচে থাকাটা খুব  কঠিন কী ?


একটা জীবনে শুধুমাত্র ক্রোধ ,হিংসা ,পরচর্চা , নিন্দা প্রাধান্য পাবে ! ভালোবাসা , নির্ভরশীলতার তো স্থান থাকা উচিত ৷ আত্মসমালোচনা করাটা দরকার খুবই ৷


আমরা সকলেই নিজেদের জীবনে ব্যস্ত ৷ আমি কী কিংবা আমার কী আছে তা জানানোর থেকে আমি জীবনকে কতটা সুন্দর ভাবে চালিয়ে নিয়ে যেতে তা গুরুত্ব পাওয়া উচিত 

নিজের  কাছে ৷ কাউকে অপমান ,কষ্ট দেওয়ার থেকে সহজ কাজ সত্যিই বোধহয় পৃথিবীতে নেই ৷ কিন্ত যে অপমান করছে অন্যকে সে ভেবেও দেখে না তাকে কতটা কদর্য দেখাচ্ছে ৷ ইদানিং অনেক মানুষকে বলতে শোনা যায় ভালোবাসার থেকে ঘৃণা শ্রেয় !



কারণ একটাই ভালোবাসার মধ্যে অনেক মুখোশ লুকিয়ে থাকে ! ঘৃণাকে কখনই সে মুখোশ পড়তে হয় না I সময় আমাদের খুব কম l বাঁচার মত করে  বাঁচা  এবং অন্যকে বাঁচতে সাহায্য করা ৷ হতাশা থাকবেই ৷ কিন্তু তা যেন দীর্ঘস্থায়ী না হয় ৷ আমি আপনার জীবনদর্শনের  প্রেরণা  না হতে পারি কিন্তু আপনি হতে পারেন আমার প্রেরণা ৷ আপনি যে ভালো আছেন সেটা দেখতে ভালোলাগে কারোর কারোর ৷


ভালোবাসায় থাকাটা নিজেকেই অভ্যাস করতে হয় ৷ নিজের বৃত্ত থেকে বেরিয়ে আসতে জানতে হয় তার জন্য পড়াশুনা লাগে না ; লাগে মন ৷ 

তাকে কাঁটামুক্ত করে দুটো হাত বাড়ান দেখবেন অনেক হাত এগিয়ে এসেছে ৷


জীবনের এই চলার পথটুকুতে চিরকাল বৃষ্টি ঝরে 


বর্ষা 


বর্ষা নামুক এ নিসঙ্গ দ্বীপে 

ভেসে যাক হৃদয়ের পথ ঘাট 


আদিমতা আসুক তোমার ,আমার দেহে 

বয়ে যাক প্রাচীন  অন্ধকার


ভালোবাসার জন্য আমাদের নিজেদের উজাড় করে দিতে হয় 



উষ্ণার্ত নাবিক 



হৃদয়ের কাছাকাছি যত পৌছাই 

একটা নিঃশ্বাস বের হয়

তীব্র অভিমান জমা হয়

অস্থিমজ্জা জুড়ে

আলাদা স্বাদ লাগে রক্তের 

কোথায় এ উষ্ণার্ত নাবিক 

আরো আগুন দাও !



এক সময় 


 ভাবতে অবাক লাগে !


 

একসময়

মাটি খুঁড়ে খুঁড়ে প্রত্নতাত্ত্বিক ভুলগুলো জমা রেখেছিলাম 

হঠাৎ তারা গাছ হয়ে ওঠে 


ডালে ডালে ঋতু জমাট বেঁধে  

থাকে 

বসন্ত বাউড়ি খুঁটে খুঁটে খায়

উড়ে এসে বসে  বারান্দা বাগানে 

কিছুটা বসন্ত ফেলে যায়

আমি তুলে রাখি 

বোতালে 

ছাই হয়ে ওঠে


কবিতা আমার নিঃশাস৷কবিতা আমার অনুপ্রেরণা।বেঁচে থাকার অঙ্গীকার । তাই জীবনে যেন আরো বেশী কবিতা নামুক সেই প্রার্থনা করি । জৈষ্ঠ্যর শেষে  আষাঢ় আসুক কবিতার ছত্রে ছত্রে৷ 

প্রসঙ্গত আপনাদের জানিয়ে রাখি সৃপ্রকাশন নিবেদিন যৌনতা সংখ্যা খুব শীঘ্রই প্রকাশ পাচ্ছে। " সৃজন" বর্ষা সংখ্যা সেজে উঠেছে অনেক গুণী মানুষের সান্নিধ্যে৷ এই সংখ্যায় নতুন কবিদের কবিতায় ভরে উঠেছে।।"সৃজন" পরবর্তী সংখ্যার নাম " উৎসব " সংখ্যা । এই পরিস্থিতিতে আমরা উৎসব উপভোগ করব ঘরে বসে কবিতা,গল্পে ,উপন্যাসে। আমাদের উৎসব সংখ্যার  জন্য আমরা খুব শীঘ্রই লেখা চাইব। আপনারাও উৎসব সংখ্যায় লেখা দেওয়ার জন্য সবাই তৈরি হন। সবাই খুব ভালো থাকুন, সৃজনে থাকুন, আনন্দে থাকুন৷ আমাদের লেখা পাঠান। সৃজন এখন থেকে সাপ্তাহিক ভাবেও কবিতা, ধারাবাহিক গল্প, ভ্রমণ প্রকাশ করতে চলেছে৷ সৃজনে লেখা পাঠানোর ঠিকানা কিন্তু একই আছে তাও ইমেইল আইডিটা আরও একবার  বলে রাখি। srijanblog10@gmail.com ইমেলে আপনি আপনার অপ্রকাশিত লেখা টা পাঠান আমরা আমরা খুব যত্নসহকারে আপনার লেখা প্রকাশ করব। সবাই খুব ভালো থাকুন আরো একবার বলি৷ শুভরাত্রি৷


পারমিতা চক্রবর্ত্তী

সম্পাদক


চিত্রঋণ :জয়িতা ব্যানার্জি

১৬টি মন্তব্য:

  1. ভোর যদি দিনকে চেনায় তেমনি তোমার সম্পাদকীয় সবসময়েই সৃজনকে একটা আলাদা মাত্রায় নিয়ে যায়। মুগ্ধ হলাম।

    উত্তরমুছুন
    উত্তরগুলি
    1. অনেক ভালোবাসা দাদা আপনাকে। এই ভাবে সৃজনের পাশে থাকুন।

      মুছুন
  2. উত্তরগুলি
    1. অনেক ধন্যবাদ আপনাকে৷ সৃজনের পাশে থাকুন এভাবেই।

      মুছুন
  3. খুব ভাল বললি রে,সবার সঙ্গে বাঁচাটাই তো বাঁচা,একা একা কী বাঁচা যায়

    উত্তরমুছুন
    উত্তরগুলি
    1. তাইতো জোর করে লেখা চাই, জোর করে তোমাকে আসতে বলি। আর এই ভালোবাসার জন্যই তো এই " সৃজন"।

      মুছুন
  4. উত্তরগুলি
    1. অনেক ভালোবাসা সৌমী। আরো গল্প চাই কিন্তু সুন্দর সুন্দর।

      মুছুন
  5. খুব সুন্দর সম্পাদকীয়

    উত্তরমুছুন
  6. অনেক ধন্যবাদ এবং সাথে ভালোবাসা। সৃজনে থাকুন এভাবেই ।

    উত্তরমুছুন
  7. সম্পাদকীয় সুন্দর বক্তব্যখচিত।

    উত্তরমুছুন